X
Search results for:
No result found! Try with different keywords!
Users
Organizers
Events
Advertisement

Visit Meghalaya: Half Way to Heaven with TourMoor

Advertisement


Event Details

Visit Meghalaya: Half Way to Heaven with TourMoor


নভেম্বরে শীতের আমেজে আমরা Tourmoor যাবো মেঘালয়ে। মেঘালয় নামের মাঝেই মেঘের উপস্থিতি তবে তাই বলে শুধু মেঘেরই দেখা মেলে মেঘালয়ে তেমন নয়! মেঘালয় রাজ্য হচ্ছে মেঘ, বৃষ্টি, জলপ্রপাত, পাথুরে গুহা আর অর্কিডের দেশ।
মেঘালয়কে একটি বিশেষ উপমায় ডাকা হয়, ব্রিটিশরা তাদের শাসনামলে মেঘালয়কে নাম দেয়া হয় Scotland of the East নামে।
অনেকে এর অনেক ব্যাখ্যা দেয়, তবে আমাদের নিজস্ব অভিজ্ঞতায় মনে হয়েছে Scotland যেমন উঁচু মালভূমি, গাছহীন খোলা ঘাসের প্রান্তর আর সবসময় রহস্যময় কুয়াশাঘেরা থাকে, মেঘালয় রাজ্যের মালভূমিগুলো ঠিক তাই। পাহাড়ের চূড়ায় যদ্দুর দেখা যায় ঘাসের প্রান্তর, ফাঁকে ফাঁকে ছাড়া ছাড়া ভাবে পাইন বন আর হুটহাট হানা দেয়া কুয়াশা।

আমাদের এবারে ভ্রমণ পরিকল্পনায় থাকছে একাধারে পার্বত্য খরস্রোতা নদী, বিশালাকার কিছু জলপ্রপাত, পাহাড় চূড়া থেকে দেখা কিছু উপত্যকা, পার্বত্য হ্রদ, গুহা আর এক ঝাপি মেঘ আর বৃষ্টি!

ভ্রমণ আকর্ষণসমূহঃ
শ্নোংপেডং গ্রাম, উমগট নদী, ক্রাংসুরি জলপ্রপাত, জোয়াই এর মালভূমি, শিলং শহর, উমিয়াম লেক, খাসি রাজার প্রাসাদ, শিলং গলফকোর্স, শিলং পিক, এলিফ্যান্ট ফলস, মৌকডক ভিউ পয়েন্ট, ওয়াহকাবা ফলস, লাতারা ফলস, ডাইন্থলেন ফলস, আরওয়াহ কেভ, চেরাপুঞ্জি ইকোপার্ক, সেভেন সিস্টার্স ফলস, মৌসমাই কেভ, নোহকালিকাই ফলস, ল্যাপিনশংডর ভিউ পয়েন্ট, লিভিং র‍্যুট ব্রিজ(রিওয়াই), মাউলিং গ্রাম (এশিয়ার ক্লিনেস্ট ভিলেজ খ্যাত), বড়হিল ফলস, উমক্রেম ফলস, ডাউকি।

দিন অনুযায়ী ভ্রমণ পরিকল্পনাঃ

১ম রাতঃ ঢাকা থেকে রাতের বাসে সিলেট পৌঁছে রিজার্ভ মিনি বাসে ডাউকি বর্ডার পৌছানোর পরিকল্পনা নিয়ে আগানো।

১ম দিনঃ খুব ভোঁরে ডাউকি ইমিগ্রেশনে পৌঁছে সব প্রস্তুতি নিয়ে বর্ডার পার হবার সব আনুষ্ঠানিকতা পালন (এর মাঝেই ইমিগ্রেশন অফিসের সামনের রেস্টুরেন্টে নাশতা করে ফেলবো)
বর্ডারের ওপারে আমাদের গাড়ি রেডি থাকবে ভারতের ইমিগ্রেশনে এন্ট্রি সিল নিয়েই আমরা রওনা হয়ে যাবো শ্নোংপেডং গ্রামে। এখানেই আমাদের লাঞ্চ, তবে লাঞ্চের আগে আমরা শ্নোংপেডং এর পাশে বয়ে চলা উমগট নদীতে বোটিং করবো ও দুটি সাসপেনশন ব্রিজ ঘুরে আসবো। শ্নোংপেডং থেকে যাবো ক্রাংসুরি ফলস। সেখান থেকে জোয়াই এর মালভূমি হয়ে আমরা সন্ধ্যায় পৌঁছে যাবো শিলং। শিলং এ হোটেল চেক ইন শেষে রাতে ডিনার বাঙ্গালি হোটেলে ডিনার।

২য় রাতঃ হোটেলে রাত যাপন
২য় দিনঃ সকালে নাশতা শেষে আমরা রওনা হয়ে যাবো শিলং পিক (শিলং এর সর্বোচ্চ চূড়া, বিকেল ৩ টার পর কেউ যেতে পারেনা, তাই সকালেই ভরসা) শিলং পিক থেকে আমরা যাবো এলিফ্যান্ট ফলসে (লাঞ্চ এখানেই করে নিতে পারেন) এরপর আমরা যাবো শিলং গলফকোর্সে। শহরের মাঝে পাহাড়ঘেরা একটি সমতলে পাইন গাছে ঘেরা এই গলফকোর্স আপনাকে মুগ্ধ করবেই! এখান থেকে আমরা চলে যাবো উমিয়াম লেকে। বিকেলটা কাটবে উমিয়াম লেকেই।

৩য় রাত হোটেলঃ
৩য় দিনঃ আমরা খুব ভোঁরে রওনা হয়ে যাবো চেরাপুঞ্জির পথে। পথেই মৌকডক ভিউ পয়েন্ট। সকালের নাশতা আমরা এখানেই করবো। পাশেই আছে ওয়াহকাবা ফলস। এখান থেকে আমরা সোজা লাতারা ফলস ভিউ পয়েন্ট হয়ে একটি সারপ্রাইজ দিবো এমন স্থানে। এটির নাম এই মুহুর্তে গোপন রাখলাম। এরপর আমরা যাবো ডাইন্থলেন ফলসে। ডাইন্থলেন থেকে আরওয়াহ কেভ হয়ে আমরা যাবো ইকো পার্কে। ইকোপার্কেই লাঞ্চ করে নিতে বলবো আপনাদের। এরপর আমরা যাবো আমাদের অন্যতমত আরাধ্য সেভেন সিস্টার্স ফলসে। সেখান থেকে মৌউসমাই কেভ হয়ে নোহকালিকাই ভিউ পয়েন্ট। এরপর ফিরে আসবো শিলং শহরে।

৪র্থ রাতঃ হোটেল
৪র্থ দিনঃ এদিন শুরু হবে আমাদের শিলং থেকে ল্যাপিংশংডর ভিউ পয়েন্ট ঘুরে লিভিং র‍্যুট ব্রিজে। লিভিং র‍্যুট ব্রিজ থেকে আমরা যাবো মাউলিং গ্রামে। লাঞ্চ এখানেই। মাউলিং থেকে আমরা বড়হিল ফলস (আমরা যেটিকে পান্থুমাই বলি) হয়ে উমক্রেম ফলস হয়ে চলে আসবো ডাউকি ব্রিজে। যেটি আমরা দেখে থাকি জাফলং থেকে।
ডাউকি ব্রিজই আমাদের ভ্রমণের শেষ আকর্ষণ। এরপর বিকেলে আমরা বর্ডার ক্রস করে ঢুকে যাবো বাংলাদেশে। এরপর সিলেট হয়ে আমাদের ঢাকায় ফিরে আসা।

এই ভ্রমণ প্যাকেজটির মূল্যঃ ১৪,৫০০ টাকা (শেয়ারিং বেসিসে)
কাপলদের জন্যে কিছুটা এডিশনাল এড হবে, দুজনের জন্যে হয়তো ২৯০০০ টাকার জায়গায় ৩০০০০ টাকা আসবে, হোটেলে যা এক্সট্রা চার্জ আসে পার হেড তাই নিবো, এখানটায়ও প্রফিট খুজবো এমন মানুষ আমরা নই :P
এটাকায় আপনি পাচ্ছেনঃ
১। ঢাকা-সিলেট-ঢাকা নন এসি বাসে যাতায়াত
২। সিলেট-ডাউকি-সিলেট সিএনজি বা রিজার্ভ মিনি বাসে যাতায়াত
৩। ডাউকি বর্ডারে প্রবেশের পর থেকে ফিরে আসা পর্যন্ত সার্বক্ষণিক রিজার্ভ গাড়ি।
৪। শিলং পুলিশ বাজারে হোটেক জে কে ইন্টারন্যাশনালে ৩ রাত থাকা
৫। প্রতিদিন সকাল ও রাতের ডিনার (মেঘালয়ে, সব খাবারের দোকানেই মুরগীর ঠ্যাং এর পাশাপাশি শুয়োরের ঠ্যাং ঝুলে, সব মেন্যুতে চিকেন/পর্ক এভাবে অপশন থাকে, মেন্যুতে এভাবে থাকে "চিকেন/পর্ক ফ্রাইড রাইস"
এসব কারণে বিতর্ক এড়াতে লাঞ্চ অপশন থেকে আমরা দূরে থাকছি, তবে ব্রেকফাস্ট এবং ডিনার উভয়েই হবে শিলং এর অন্যতম সেরা বাঙ্গালি হোটেল, হোটেল অরুণে, মেন্যুতে, মাছ সব্জি, ভর্তা, পনির সব্জি এসব আইটেম থাকবে, কেউ চিকেন চাইলে নিতে পারেন, তবে আমাদের মেন্যুতে রাখবোনা হারাম-হালাল ইস্যুতে। এক্ষেত্রেও কোন অতিরিক্ত চার্জ দিতে হবেনা।
৬। সব ডেস্টিনেশনে এন্ট্রি ফি এবং পার্কিং ফি, তবে ব্যক্তিগত ক্যামেরা ফি নিজেদের দিতে হবে।
৭। এটি সম্পূর্ণ গাইডেড ট্যুর হবে এমন না শিলং যেয়ে আমরা ড্রাইভার বা লোকাল গাইডের স্মরণাপন্ন হবো, আমাদের নিজস্ব রেকি ট্যুরের পরই আমরা কোন লোকেশনে ট্যুর অফার করে থাকি, শিলং এও আমাদের রেকি ট্যুর হবার পরেই যাচ্ছি, অন্তত এমন হবেনা আমরা যেয়ে আমরা উদ্ভ্রান্তের মতো ঘুরোঘুরি করবো, রোড সাইন দেখিয়ে বলবো ওইদিকেই হতে পারে! ;)
আর গাইডেড ট্যুর মানেই এমন না খালি পথ চিনি, যেমন শিলং পিক এ বিকেল ৩টার পর যাওয়া যায়না, এমন না ৩ টের পর আপনাদের নিয়ে যেয়ে গেটের বাইরে থেকে ফিরে এসে বলবো এই নিয়ম তো আগে দেখিনি ;)
আমরা যখন যে স্থানটি দেখার সেরা সময়, সে সময়েই যাবো। এটিই গাইডেড ট্যুরের অন্যতম সুবিধা।

বুকিং প্রসিডিউরঃ বুকিং হিসেবে আমরা পুরো টাকাই একসাথে নিয়ে নিচ্ছি, তবে কারো একত্রে দিতে সমস্যা থাকলে ৭৫০০/- (নন রিফান্ডেবল) টাকা দিয়ে বুকিং করতে পারেন, তবে ট্যুরে যাবার আগেই পুরো টাকা পরিশোধ করতে হবে।
আমাদের অফিসঃ
Hub Dhaka, ইসলাম প্লাজা, প্লট ৭, বেগম রোকেয়া এভিনিউ, মিরপুর ১১ বাস স্ট্যান্ড (কে এফসির উল্টো দিকে, লিফটের ৯)
চাইলে ব্যাংক ডিপোজিট করতে পারেনঃ
Account Name: Ogreem.com (আমাদের এই ট্যুরের বুকিং পার্টনার
Current Account Number: 1401922752001
The City Bank Ltd
Savar Branch
বিকাশ কিংবা রকেটঃ
01846220058 For rocket:018462200586 এক্ষেত্রে বিকাশ চার্জ ১.৮ যোগ করে পাঠাতে হবে।

এবার আশা যাক ভিসা ইস্যুতে-
মেঘালয় রাজ্য ভারতের একটি রাজ্য, মেঘালয়ে যাবার জন্যে আপনার প্রয়োজন ডাউকি পোর্ট দিয়ে একটি ভিসা।
যাদের ভারতীয় ভিসা নেই বা মেয়াদ উত্তীর্ণ, তাঁরা ভিসা আবেদন করবেন ডাউকি পোর্ট সিলেক্ট করে। উল্লেখ্য ডাউকি পোর্টে আপনার ভিসা করা হলেও আপনি বাই এয়ার, বাই রেল এবং বাই রোডে বেনাপোল সীমান্ত দিয়ে যেতে পারবেন। অতএব ডাউকি পোর্টে ভিসা করা হলে আপনার বেনাপোল দিয়ে যেতে, বা রেলে বা বাই এয়ারে যেতে কোন সমস্যা হবেনা।

যাদের ইতোমধ্যে ভারতীয় ভিসা আছে অন্য কোন পোর্টে তাঁদের জন্যে বিষয়টি জটিল, আপনাকে বারিধারাতে ভারতীয় দূতাবাসে পোর্ট পরিবর্তন সংক্রান্ত আবেদন করতে হবে। তারপর সেখানে অনুমতি পেলে তাঁদের উল্লেখিত ভিসা এপ্লিকেশন সেন্টারে ভিসা ফি ৬০০ টাকা জমা দিলেই আপনিও ডাউকি পোর্ট দিয়ে প্রবেশ করতে পারবেন, সাথে উল্লেখিত আগের পোর্টেও আপনি যেতে পারবেন।

ভিসা আবেদনঃ নিজেকেই করতে হবে, আমরা টাইম টু টাইম গাইডলাইন দিয়ে সহায়তা করতে পারবো, প্রকৃয়াটি খুবই সহজ। এটিও ইভেন্ট পেজে শেয়ার করছি আলাদা ভাবে। দালাল ধরতে হবেনা, আমাদের গাইড লাইন এর সহায়তায় নিজেরেই করে ফেলতে পারবেন।

ভ্রমণ সংক্রান্ত বিস্তারিত জানতে কল করুনঃ
01846220058 (Masuk) এই নম্বরে, চাইলে এক কাপ কফির দাওয়াতে চলে আসুন আমাদের অফিসে (উপরে ঠিকানা দেয়া আছে)



You may also like the following events from the same organizer:

Liked this event? Spread the word :

Map Tourmoor, Plot 7, Begum Rokeya Avenue, Mirpur 11, Dhaka, Dhaka, Bangladesh
Loading venue map..
Questions or Comments? Post them here.
Event details from Report a problem
This event is listed in

Are you going to this event?

Yes
Who's going?
Login to see participants.
Advertisement

More Events in Dhaka

Explore More Events in Dhaka
Create an Event